শিক্ষা গবেষনায় ইউরোপের ৯টি দেশে ১৫ টি বৃত্তি

বেশ কিছুদিন ধরেই বাংলাদেশে শিক্ষানীতি নিয়ে হইচই হচ্ছিল। সবাই মোটা দাগে
দুই ভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছিল। আমি কোন ভাগে না পড়লেও বিরক্ত হয়েছিলাম অন্য
কারণে। শিক্ষানীতি প্রনয়ন কমিটিতে শিক্ষানীতি বিশেষজ্ঞ সম্ভবত মাত্র একজন
ছিলেন। শিক্ষক মাত্রই যে শিক্ষানীতি বিশেষজ্ঞ হবেন না সেটি নীতি
নির্ধারকদেরকে কে বোঝাবে?

যাই হোক, এবার কাজের কথায় আসি। শিক্ষা গবেষনায় ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের
'এডুওয়েল' নেটওয়ার্ক মেরিকুরি ফেলোশিপের আওতায় ১৫ টি পিএইচডি স্কলারশিপ
অফার করেছে।

আবেদনের শেষ তারিখ: ১৫ই এপ্রিল, ২০১০।

আশাকরি এই স্কলারশিপের মাধ্যমে কেউ কেউ পিএইচডি করে প্রকৃত শিক্ষাগবেষক হিসাবে ভবিষ্যতে শিক্ষানীতি প্রনয়নে ভূমিকা রাখবেন :)

বিস্তারিত: লিন্ক

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

খু্‌বই গুরুত্ববহ পোষ্ট। আফসোস! যদি এখনো ছাত্র থাকতে পারতাম। ধন্যবাদ

-

"এই হলো মানুষের জন্য স্পষ্ট বর্ণনা ও হেদায়াত এবং মুত্তাকীদের জন্য উপদেশ।" [আলে-ইমরান: ১৩৮]

ধন্যবাদ

-

আরাফাত রহমান
ওয়েব ডেভেলপার
http://arafatbd.net

আপনাকেও ধন্যবাদ।Smile

শেষ পর্যন্ত কি তাহলে সেক্যুলার শিক্ষাই বাংলাদেশের ভাগ্য?

-

-রাজনীতিতে না কি শেষ কথা বলে কিছু নেই

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)