অনুরোধ


যত্নের ত্রুটি অন্তত আমি খুঁজে পাই নি।

সাজিয়েছিলাম অবিশ্রান্ত ঐকান্তিকতায়।

তোমরা হয়তো অকস্মাৎ দৃষ্টিপাতে অবাক হবে একটুখানি,

এরপর বলবে, ‘এমনও হয়!’

দৃষ্টির সীমানার শেষ প্রান্তে উপস্থিত হয়ে তুমি জবাব খুঁজে পাবে

আমার ঝরে পড়া ঘামেই উর্বর মৃত্তিকা ধারণ করেছে শ্যামল আঙিনা,

-ঠিক এমনই সাক্ষ্য দেবে অবাক করা সজীবতা!

সুন্দরের টানে এখানে ছুটে এসেছিলো চঞ্চল হরিণীর দল

ওদের প্রাণময় নাচন হৃদয়ের বারিধিতে চেতনার ঢেউ তুলতো

মায়াবী চোখের প্রতি ভালোবাসা অব্যক্ত রেখে

শুধু অপলক দৃষ্টি ঘুরিয়েই তৃপ্তির ঢেকুর তোলতাম।

বলতে পারো, আমার চাওয়া অতটুকু-ই!

অসুন্দরের ছুঁড়ে দেয়া বিষ-বাণে ওরা ভীষণ আহত

খুন-ঝরাবার শখ ওদের নেই,

নেই আমারও।

উচ্ছ্বল হরিণীরা তাই এখানে আসে না আর

আমার শূন্যতার বৃত্তের পরিধি ক্রমশ বাড়তে থাকে।

দোহাই তোমাদের!

এখানে শিকারের আশায় এসো না।

সুন্দরের মেলায় তুমিও একটু ঘুরে দেখো,

একটু সুযোগ করে দাও চেতনার হরিণীদের।

দেখবে শেষে,

মৃগনাভীর মোহন ঘ্রাণে তুমিও আকুল!

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)