তিন লাখ টাকায় টার্গেট কিলিং!

ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের নির্দেশনা অনুযায়ী সারা দেশে একের পর এক টার্গেট
কিলিং ঘটাচ্ছে। সারা দেশে জঙ্গিদের ৩০ থেকে ৪০টি স্লিপার সেল রয়েছে। প্রতিটি
সেলে ৪ থেকে ৬ জন করে সদস্য রয়েছে। প্রতিটি হত্যাকাণ্ড ঘটানোর জন্য স্লিপার সেলের সদস্যরা
তিন লাখ টাকা করে পাচ্ছে। যার মধ্যে দেড় লাখ টাকা অগ্রিম এবং বাকি দেড় লাখ টাকা কিলিং মিশন বাস্তবায়নের পর
দেয়া হচ্ছে। কেউ হত্যাকাণ্ড ঘটানোর সময় ধরা পড়লে কিংবা মারা গেলে তাদের পরিবারকে মোটা অংকের
অর্থ দেয়া, পরিবারের ভরণপোষণের প্রতিশ্র“তি দেয়া হচ্ছে। আর কেউ ধরা পড়লে সংশ্লিষ্টদের দেয়া হচ্ছে জামিন করানোর
প্রতিশ্রুতিও। স্লিপার সেলের সদস্যরা সাধারণত প্রত্যন্ত অঞ্চলে কম নিরাপত্তা বেষ্টিত এলাকার ব্যক্তিদের
টার্গেট করছে। যেখান থেকে হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে দ্রুত পার পাওয়া সম্ভব। হত্যার
আগে রেকি (মহড়া) করে এলাকা পর্যবেক্ষণ করছে। যারা এমন
গুপ্তহত্যা করছে তারা কি কখনো চিন্তা করেছে এই গুপ্ত হত্যায় ঝরে যাচ্ছে একটা পরিবার। কি হবে
এই পরিবারের? আর এক পরিবারের ক্ষতি করে অর্থ উপার্জন
করে নিজের পরিবারকে আনন্দ দিচ্ছেন? অবৈধ পথে টাকা উপার্জন না
করে বিবেক বুদ্ধি কাজে লাগিয়ে সৎ পথে অর্থ উপার্জন করুন।

Normal
0

false
false
false

EN-US
X-NONE
BN

/* Style Definitions */
table.MsoNormalTable
{mso-style-name:"Table Normal";
mso-tstyle-rowband-size:0;
mso-tstyle-colband-size:0;
mso-style-noshow:yes;
mso-style-priority:99;
mso-style-qformat:yes;
mso-style-parent:"";
mso-padding-alt:0in 5.4pt 0in 5.4pt;
mso-para-margin-top:0in;
mso-para-margin-right:0in;
mso-para-margin-bottom:10.0pt;
mso-para-margin-left:0in;
line-height:115%;
mso-pagination:widow-orphan;
font-size:11.0pt;
mso-bidi-font-size:14.0pt;
font-family:"Calibri","sans-serif";
mso-ascii-font-family:Calibri;
mso-ascii-theme-font:minor-latin;
mso-hansi-font-family:Calibri;
mso-hansi-theme-font:minor-latin;
mso-bidi-font-family:Vrinda;
mso-bidi-theme-font:minor-bidi;}

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None