ঐক্যের প্রশ্নে বিশুদ্ধ আক্কীদার বিষয়টিকে ছোট করে দেখার কোন সুযোগ নেই্; বরং তা থেকেই ঐক্যের সূচনা করতে হবে

* বিশুদ্ধ আক্কীদার ব্যপারটাকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। কারণ
মুসলমানদের সফলতা শুধুমাত্র দুনিয়াতে নয়; বরং আসল সফলতা আখেরাতে। অশুদ্ধ
বিশ্বাস তথা শির্ক ও প্রত্যাখ্যাত বিষয় নিয়ে দুনিয়ায় সফলতা আসলেও আখেরাতে
আটকে যেতে হবে। আর আখেরাতে আটকে যাওয়া মানে পুরোটাই ব্যর্থতা!

* মুসলমানদের বিভাজনে কাফের-মুশরিকদের চতুর হাত রয়েছে; একথা অনস্বীকার্য। তাই আলেম ও শাসকগণের উচিত এসব বিষয় বুঝা ও নূন্যতম ঐক্যের সুযোগকেও হাতছাড়া না করা।

* মূলতঃ ঐক্য এবং অর্থনৈতিক বিষয়গুলোর পুরোটাই নির্ভর করে শাসক শ্রেণীর
মনমানসিকতার উপর। আফোসস করার বিষয় এটা যে, মুসলিম বিশ্বে ঐক্য এবং ইসলামী
অর্থনীতিতে বিশ্বাসী ও এর দ্বারা যে কি পরিমাণ সুফল আসা সম্ভব; এসব চিন্তা
করার মত শাসক বর্তমান নেই। যা দু'একজন আছেন তারাও নানাভাবে কোণঠাসা
অবস্থায়। সুতরাং অনেকেই শুধুমাত্র দাওয়াতী কাজের গুরুত্ব বুঝিয়ে থাকেন। আমি
মনে করি, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়াসাল্লামের পুরো জীবনটাকেই
একত্রে সামনে রেখে আমাদের ব্যক্তিগত, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্তসমূহ
নিরপেক্ষ ও নিঃস্বার্থ দৃষ্টিভঙ্গিতে নিতে পারলে সামনে এগুনো সম্ভব হবে।
অন্যথা সময় আমাদের সামনে নিয়ে যাবে কিন্তু আমরা ঠিক পেছনে থেকে যাবো।

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None