সত্য বলা, চলা ও প্রচারই হোক বিসর্গের ভাষা...

সৃষ্টিরাজ্যের বিস্ময় দেখে সত্যের নাগাল পেলেন যিনি ( দুই )

সৃষ্টির বিস্ময় নিয়ে গবেষণা সবসময়ই ছিল শিক্ষণীয়। যুগে যুগে বহু মনীষী বিশ্বের এই বিস্ময় উপলব্ধি করে তার স্রষ্টার প্রশংসায় বিগলিত হয়েছেন এবং সৃষ্টির অস্তিত্বের পেছনে মহাজ্ঞানী কারো অস্তিত্বের কথা স্বীকার করেছেন। এ কারণেই মহাগ্রন্থ আল-কোরআন সবসময় চিন্তাশীলদেরকে সৃষ্টি রহস্য নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করার আহ্বান জানিয়েছে। সূরা আরাফে’র ১৮৫ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছেঃ আকাশ ও পৃথিবীর ব্যবস্থাপনা কিংবা আল্লাহ যা কিছু সৃষ্টি করেছেন-তারা কি সেগুলো দেখে নি?.....
সূরা আল-ইমরানের ১৯০ নম্বর আয়াতেও বলা হয়েছেঃ নিশ্চয়ই আকাশ ও যমিন সৃষ্টিতে এবং দিন-রাত্রির আবর্তনের মধ্যে চিন্তাশীলদের জন্যে সুস্পষ্ট নিদর্শন রয়েছে।
কোরআন বহু স্থানে আল্লাহর সৃষ্টিকূলের প্রতি ইঙ্গিত করে বিবেকবুদ্ধি সম্পন্ন লোকদের উদ্দেশ্যে সেসব নিয়ে চিন্তাভাবনা করতে বলেছে । কেননা চিন্তাভাবনা করলেই আল্লাহর সুমহান অস্তিত্বের বিষয়টি চিন্তাশীলদের কাছে সুস্পষ্ট হয়ে যাবে।

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (3টি রেটিং)

এশা THE NIGHT PRAYER

এশা

রাত্রি এলো চুপিসারে
নিঝুম করে পাড়া
মিনার থেকে আজান হলো
পড়ে গেলো সাড়া

আজান আসে রাতের প্রথম
জোছনা করে চুম
নয় রাকাতে এশার সালাত
আদায় করে ঘুম

ঘুমের আগে যে এবাদত করে
তার উপরে খোদার রহম ঝরে।

THE NIGHT PRAYER

Night appears in stealthy manner
Turning the localily silent heavier
Then comes from Minar the call of Prayer
Making the zone again livelier.

The Call comes with the maiden Night
That kisses the moon full and brighter
After saying nine rakah Salah
Each goes to to bed for sleep aright.

One who says his prayer before sleep
Enjoys God's Grace in deep.

 

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (3টি রেটিং)

তলা'আল বাদরু আলাইনা: প্রথম জুম‘আ ও স্বদেশীর ভিড়ে

৪//৩১ মে ২০০৬               গত দিনের ভ্রমণ-ক্লান্তি আর খোঁজা-খুঁজির শ্রান্তি লাঘবে ভোরের ঘুমটি ভাঙ্গলো যখন, তখন চোখ মেলতেই দেখি জ্ঞান-পিপাসুদের সাজানো বাগান। কত আর হবে সকাল নয় কি সাড়ে নয়টা, বসেছিলাম কিছুক্ষণ, দেখেছিলাম জ্ঞানের আকাংখা, সৌন্দর্য্য, শৃংখলা। দিনটি ছিল শুক্রবার, রাসূলুল্লাহ্‌ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লামের মসজিদে এটাই আমার জীবনের প্রথম জুম্‌‘আ, আত্মার রঙ যেন আমি দু’চোখেই দেখতে পাচ্ছি। অযু করে পবিত্রতা অর্জন করে ধীর পদে চললাম মসজিদের পানে, পথ তো নয় যেন জনতার ঢল। মসজিদের ভেতরকার অবস্থা উপছে পড়া, অবশেষে যেন সারিগুলো খুঁজলে দু’টো পা রাখার জায়গাও পাওয়া যাবে না। শুক্রবারে ছাদ খুলে দেয়া হয়, এছাড়া মদীনা যেহেতু মক্কার উত্তরে অবস্থিত তাই মদীনার কিব্‌লা দক্ষিণে, মসজিদের বাইরের দক্ষিণাংশ মানে ইমামের সম্মুখের অংশ বাদ দিয়ে পূর্বাংশ, পশ্চিমাংশ ও উত্তরাংশেও মুসল্লীদের বৃদ্ধি অনুযায়ী বিস্তৃতি ঘটতে থাকে এইদিনে। প্রায় এগারটার মধ্যে পৌঁছেও প্রথমদিকে স্থান পেলাম না; বর্তমান প্রথম ছাতার সামনের অংশে জায়গা পেলাম। অনুভব করলাম মহান আল্লাহ্‌ তা‘আলার ইবাদাতে মানুষের মনের প্রতিযোগী

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

একজন বাংলাদেশী হতে পেরে গর্বিত...

মারজুক ভাইয়ের মামা দেশে এসেছেন সম্প্রতি। বিয়ে করবেন। ছয় বছর পর দেশে এলেন, তাই অনেক গল্প জমে গেছে । কথা যেন ফুরাতেই চায় না। দু'দিন আগেই, সন্ধ্যায় কিছু পিঠা নিয়ে হাজির হলাম (আরামবাগে একটা পিঠার দোকান আছে। গাজী পিঠা ঘর। জোশ পিঠা বানায়। পাঠকের দাওয়াত Smiling )

পিঠা খেতে খেতে মামা'র গল্প শুনছিলাম। এটা সেটা অনেক গল্পের পর মামা ও মাহমুদ ভাই বাইরে কোথায় যেন যাবেন, তাই উঠে পড়লেন। এটা সেটা প্রস্তুতি নিতে নিতে হঠাৎ মামা চাবি খুঁজতে শুরু করলেন। এবং কিছু ক্ষনের মাঝেই চাবি পাওয়া গেল। বেশ বাহারি চাবি।

"এই চাবি পাওয়া না গেলে তো আমি শেষ..." মামা বললেন।

"ক্যান? চাবি বানাবেন আরেকটা।" মারজুকের তড়িৎ জবাব।

" আরে, কোন আইডিয়াই নাই তোমার। এজন্য একথা বলতেছ। কানাডায় চাবি বানানো এত্ত সহজ না।"

"কেনো? "

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4.3 (3টি রেটিং)

ইডেন লীগ

ছাত্রীলীগের শক্ত ঘাঁটি শাখার নাম ইডেন,
বহু দিন ধরেই ছিল যাদের কীর্তিকলাপ হিডেন।
টেন্ডারবাজী? হল দখল? সেতো পুরানো কিচ্ছা,
পুরুষ নেতাদের মনোরঞ্জন!

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (4টি রেটিং)

আওয়ামীলীগরাই তল্লাটের ভদ্রলোক বটে

গোয়েবলস নাকি বলেছিল একটা মিথ্যাকে শতবার উচ্চারন করলে সময়ের বিবর্তনে সেটা সত্যে রুপায়িত হয়। বোধ করি তিনি এটা জানতেন না যে কখনো একই মিথ্যা অজুত নিযুত বারও প্রতিধ্বনী হয় কোন কোন জনপদে । গোয়েবলস যদি সেটা জানতেন তাইলে নিশ্চিত ভাবেই আরো একটি কিংবা তদোর্ধ্ব কয়েকটি সুপারলেটিভস ডিগ্রী জড়িয়ে দিতেন সেসব মিথ্যাচারের সত্যাচারের পরিভাষায় । কিংবা তার এই দিগ্বীজয়ী সূত্রের অসাধারন চর্চা দেখে বঙ্গদেশের ইহাদেরকে ডেকে নিয়ে হাকডোল পিটিয়ে এওয়ার্ড ভূষিত করতেন ইহাতে কোনই সন্দেহ নেই। তবে এতটুকুন ধারনা আমরা করতেই পারি যে,পরলোকে ঠিকই তৃপ্তির ঢেঁকুর তুলছেন বারংবার তার সূত্র চর্চায় বিমুগ্ধ হয়ে।বলছিলাম এ তল্লাট তথা বঙ্গদেশে মিথ্যাচারকে সত্যাচারে সফল রুপায়নের নির্মম বাস্তবতার কথা। এ দেশে এমন এক আজব রকমের কতৃত্বের আগমন ঘটেছে যে, তিনারা যা বলবেন তাই সত্য এবং আমাদের মত নিরীহ আমজনতাকে গিলে গিলে সেটাই হজম করতে হবে ,ও দিকে আবার বদহজম হলেও সমস্যা পাচে না আবার অত্যাচারের খড়গ হস্ত নেমে আসে, সুতরাং বদহজম হলে হোক সেটা কিন্তু বলতে মানা। তারা অতিকায় ভদ্রসমাজের বলে এদের মিথ্যার ফুলঝুরিগুলো গোয়েবলসীয় কায়দার ফ্রেঁমে বাঁধা সুতরাং স

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4.8 (4টি রেটিং)

হাসিনা আপা কত পাচ্ছেন,১০ কোটি না ১০০ কোটি নাকি আরো বেশী...খুব জানতে ইচ্ছা হয় (আরো কিছু বিশ্লেষণ)

#ভারতকে ট্রানজিট দিলে আমাদের কি অসুবিধা হতে পারে?
আওয়ামীপন্থী অনেকেই ভারতকে ট্রানজিট দেয়ার সাফাই গেয়ে গলা ফাটাচ্ছেন।কিন্তু কেন?৩০০০ কোটি টাকার একটা মূলা ঝুলানো আছে সামনে তাইনা?কিন্তু গাধাকে হাটায় কিভাবে জানেনতো?

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4.8 (5টি রেটিং)

এটা সেটা

অদ্ভূত এক নেশা
আচ্ছন্ন করে নশ্বর ধরাধমের
'মানুষ' নামের
কিছু প্রাণিকে।
সকাল সন্ধ্যায় অবসরে
হাঁটতে চলতে কিংবা ঘুমের ঘোরে
একটি ভাবনা তাদের পিছু নেয়।
পাগল নামে-ই তারা খ্যাত হয়
যদিওবা পাগলামির সংজ্ঞা
তাদের অধিকাংশেরই জানা নেই।
আমিও তার ব্যতিক্রম নই।
ঈদ সেলামী, মেধাবৃত্তির পুরস্কার
নানু বা মামার 'স্নেহ বখশিস'- যাই হোক
বিশেষ কিছু কাগুজে বস্তু হাতে এলেই
হৃদয়-গহীনে কে যেন বলে
লাইব্রেরীতে যাও কিংবা চিঠি লেখ।
আব্বু, আম্মু, ভাই বোন সকলের কাছে
পরিচিত হয়েছি 'বই পাগলা' নামে।
প্রকৃত ভাল লাগা খুঁজি কে যেন
কানে বলল 'এই বই পাগলা!'

প্রিয় মূহুর্ত তখন-ই যখন
আব্বু এসে বলেন 'তোমার জন্য উপহার'
ছুটে যাই 'কী বই দেখি'

অন্তিমক্ষণের আগ মুহূর্ত-ও আমি
বইয়ের নেশায় আচ্ছন্ন থাকতে চাই।
তবে, কু-নেশাকে অন্তর্ঘৃণার নিম্নস্তরে
স্থান দিয়েছি সর্বাবস্থায়

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (3টি রেটিং)

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের নথিপত্র ধ্বংস করে ফেলেছে ভারত : জেনারেল জ্যাকব

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের নথিপত্র ধ্বংস করে ফেলেছে ভারত
নিশ্চিত করেছেন ইস্টার্ন কমান্ডের প্রধান জেনারেল জ্যাকব

১৯৭১ সালে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ ও অমূল্য উপাদান চিরতরে বিনষ্ট করে ফেলা হয়েছে একাত্তরের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের যেসব অফিসিয়াল রেকর্ড ও নথিপত্র ভারতীয় সেনাবাহিনীর কলকাতাস্থিত ‘ইস্টার্ন আর্মি কমান্ড’-এর ফোর্ট উইলিয়ামস্থিত সদর দফতরে মজুদ ছিল, সেগুলোর এখন আর কোনো অস্তিত্ব নেই।
যেসব ফাইল নষ্ট করে ফেলা হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে­ মুক্তিবাহিনীর সৃষ্টি ও গড়ে তোলার অনুপুঙ্খ তথ্যাবলি সংবলিত নথিপত্র, বাংলাদেশ যুদ্ধের সময় ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিভিন্ন মূল্যায়ন, সেনাবাহিনীর বিভিন্ন কমান্ডারের কাছে প্রেরিত যুদ্ধ-সংক্রান্ত নির্দেশাবলি এবং এই অভিযানের সংবেদনশীল অন্যান্য বিবরণ।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (টি রেটিং)

তোমরা একে অন্যের শত্রু রূপে নেমে যাও, কিছু দিনের জন্য তোমাদের বসবাস ও জীবিকা রইল পৃথিবীতে

سورة البقرة: 35-39

35- وَقُلْنَا يَا آدَمُ اسْكُنْ أَنْتَ وَزَوْجُكَ الْجَنَّةَ وَكُلَا مِنْهَا رَغَدًا حَيْثُ شِئْتُمَا وَلَا تَقْرَبَا هَذِهِ الشَّجَرَةَ فَتَكُونَا مِنَ الظَّالِمِينَ .

36- فَأَزَلَّهُمَا الشَّيْطَانُ عَنْهَا فَأَخْرَجَهُمَا مِمَّا كَانَا فِيهِ وَقُلْنَا اهْبِطُوا بَعْضُكُمْ لِبَعْضٍ عَدُوٌّ وَلَكُمْ فِي الْأَرْضِ مُسْتَقَرٌّ وَمَتَاعٌ إِلَى حِينٍ .

37- فَتَلَقَّى آدَمُ مِنْ رَبِّهِ كَلِمَاتٍ فَتَابَ عَلَيْهِ إِنَّهُ هُوَ التَّوَّابُ الرَّحِيمُ .

38- قُلْنَا اهْبِطُوا مِنْهَا جَمِيعًا فَإِمَّا يَأْتِيَنَّكُمْ مِنِّي هُدًى فَمَنْ تَبِعَ هُدَايَ فَلَا خَوْفٌ عَلَيْهِمْ وَلَا هُمْ يَحْزَنُونَ .

39- وَالَّذِينَ كَفَرُوا وَكَذَّبُوا بِآيَاتِنَا أُولَئِكَ أَصْحَابُ النَّارِ هُمْ فِيهَا خَالِدُونَ .

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)
Syndicate content