সত্য বলা, চলা ও প্রচারই হোক বিসর্গের ভাষা...

রোহিঙ্গা শরণার্থী ইস্যু দ্বিপাক্ষিক নয়, মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সমস্যা

 

আপনার রেটিং: None

"বিসমিল্লা-হির রহমা-নির রহী-ম" সম্পর্কে বিশুদ্ধ কিছু তথ্য


পরিচ্ছন্ন পাঠের জন্য নিচের ছবিতে ক্লিক করুন। >>>

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

ষড়যন্ত্রের চোরাগলি দিয়ে ক্ষমতায় আসতে চাইছে বিএনপি

 

 

আপনার রেটিং: None

বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশের মর্যাদা বৃদ্ধি ও সুশাসন প্রতিষ্ঠা করাই সরকারের লক্ষ্য

 

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

এক কোটি পিস চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যে দেশ

 

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

হত্যাযজ্ঞ বন্ধে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ কামনার পাশাপাশি বিশ্বের সকল দেশের সমর্থন জরুরী

গত ২৫ আগস্ট রাত থেকে মিয়ানমারের সেনা, পুলিশ ও সীমান্তরক্ষী বাহিনী রাখাইন প্রদেশে
জঙ্গীবিরোধী অভিযানের নামে অসহায় রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সদস্যদের ওপর যে মানবিক নির্যাতনে
যে বিপর্যয় নেমে এসেছে তা মর্মন্তুদ রাখাইন ট্র্যাজেডি হিসেবে আখ্যায়িত করা হচ্ছে।
যে যৌথ অভিযান শুরু হয়েছে তাতে জলস্থলে বা পাহাড় পর্বতে রোহিঙ্গাদের মৃতের সংখ্যা
৩ সহস্রাধিক ছাড়িয়ে গেছে। সাগর পথে টেকনাফে এ পর্যন্ত ৫টি নৌকাডুবির ঘটনা ভেসে আসা
লাশ মিলেছে ৫৬। নিখোঁজ রয়েছে আরও অন্ততপক্ষে অর্ধ শতাধিক। জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশের
আবেদন-নিবেদন উপেক্ষা করে মিয়ানমার বাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর বর্বর আচরণ অব্যাহত
রেখেছে তা বর্তমান সভ্য দুনিয়ার ইতিহাসে নতুন ঘৃণ্যতম বর্বরতার ইতিহাস সৃষ্টি
করেছে। নির্বিচারে গুলি করে হত্যা, হেলিকপ্টার থেকে গান
পাউডারে গ্রামের পর গ্রাম জ্বালিয়ে দেয়া, সহায় সম্পদ কেড়ে
নেয়াসহ এমন কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা নেই যা সেখানে ঘটছে না। ফলে গত ১০ দিনে অর্থাৎ
২৫ আগস্ট গভীর রাতের পর থেকে বাংলাদেশে নতুন করে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঘটেছে দেড়

আপনার রেটিং: None

দুবাইয়ে জিয়া পরিবারের হাজার কোটি টাকার সম্পদ

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

চাই সঠিক ও আদর্শ রাজনীতি

 

 

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

ব্রিটেন থেকে বহিস্কৃত হচ্ছেন তারেক জিয়া

 

 

 

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

প্রতিরোধ করতে হবে সকল দুর্নীতি

বর্তমান বাংলাদেশের
উন্নতি দেখে দেশে অনেক লুকায়িত শ্ত্রুর হিংসা হচ্ছে। তারা নানা ধরনের অপপ্রচার
চালাচ্ছে। দেশের শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক পরিবেশকে কিভাবে অস্থিতিশীল করা যায় সেই
পরিকল্পনা করছে সারাক্ষণ। তারা দেশের শান্তি চায় না। দেশের মানুষের উন্নতি চায় না।
দুর্নীতির মুকুট মাথায় পরে দেশের ক্ষতি করার জন্য নানা অপপ্রচার করছে। বর্তমানে
সরকারে থাকা দলটি দেশকে সামনের দিকে নিয়ে যেতে নানা উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড করছে এতে
দেশ যেমন সামনের দিকে যাচ্ছে তেমনি দেশের মানুষ স্বাবলম্বী হচ্ছে। দেশের প্রধান
বিরোধী দলের তা সহ্য হচ্ছে না। তারা ক্ষমতায় থাকাকালীন সময় অবৈধ উপায়ে বাংলাদেশ
থেকে টাকা পাচার হয়েছে, ক্ষমতার অত্যুজ্জ্বল আলোকে ধাঁধিয়ে গিয়ে
দুর্নীতির মুকুট মাথায় নিয়ে তুঘলকি কায়দায় দেশ চালিয়েছিল। তাদের দলের নেতাকর্মীরা

আপনার রেটিং: None
Syndicate content