'মুসলিমাহ' -এর ব্লগ

হজ হোক নিরাপদ

হজ হোক নিরাপদ :

%%%

মহিলা হাজিরা যেভাবে  সাবধানে থাকবেন  :

হারিয়ে গেলে কি করবেন ?

১/  হারিয়ে গেলে ভয় পাবেন না। মাথা ঠাণ্ডা রাখবেন ।অনেক

মহিলাকে দেখেছি হাউ মাউ করে কান্নাকাটি করতে । এতে কিন্তু

সমস্যার সমাধান হয় না । আপনি  তাড়াতাড়ি ক্লান্ত,  আরও ভীত হয়ে পড়বেন । এতে সমস্যা বাড়বে।

আপনার রেটিং: None

আমার বিয়ের জন্য কেউ কখনো চেষ্টা করেন নি

আমার বিয়ের জন্য কেউ কখনো চেষ্টা করেন নি :

 আমার জন্য পরিবারের কেউ কখনো বিয়ের প্রস্তাব আনেন নি । 

এটা শুনলে অস্বাভাবিক মনে হতে পারে কিন্তু আসলেই এটা সত্যি। বাবা মারা যাবার পর থেকেই মা অসুস্থ । 

আমার বিয়ের জন্য মা কাউকে কখনো বলেন না। একদিন শুধু বলেছিলেন , তুই আমার এত আদরের মেয়ে । শ্বশুরবাড়িতে তোকে কষ্ট দিলে আমি সহ্য করবো কিভাবে ? বড় ভাই ভাবিও কখনোই আমার বিয়ের জন্য চেষ্টা করেন না। খালা মামারা মাঝে মাঝে বিয়ের কথা তুললেও মার কথা ভেবেই পিছিয়ে আসেন। আমি শ্বশুরবাড়ি চলে গেলে তাদের এই অসুস্থ বোনের সেবা যত্ন কে করবে ? বড় ভাই ভাবির মনেও এই একই আতঙ্ক । 

আপনার রেটিং: None

বেহেশতী হওয়ার জন্য বিবাহিত হওয়া শর্ত না

বিসমিল্লা

বেহেশতী হওয়ার জন্য বিবাহিতা হওয়া শর্ত না

__  জাবীন হামিদ

বেহেশতে যাওয়ার জন্য বিবাহিতা হওয়া শর্ত নয়। তাই যে সব আপুদের বিয়েতে দেরি হচ্ছে , তাদের প্রতি অনুরোধ : এই নিয়ে বেশি দুশ্চিন্তা করবেন না।

ঘরে ঘরে আজ বিবাহযোগ্য মেয়ে । আজ থেকে মাত্র ২০/ ২৫ বছর আগেও এমনটা দেখা যেতো না।

বিয়ে হতেই হবে এমন তো না ।

কেয়ামতের দিন তো ইনশাআল্লাহ কোন মেয়ের বেহেশতে যাওয়া আটকে থাকবে না বিয়ে না হওয়ার জন্য। আমরা এমন এক সমাজ তৈরি করেছি যেখানে দ্বীনদারীর চেয়ে মেয়েদের গায়ের রং, চেহারা , বাবার পদমর্যাদা , টাকা পয়সা এসবকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়। বিয়ে হলেই সব সমস্যার সমাধান , তাও তো না। 

আপনার রেটিং: None

দেনমোহর

বিসমিল্লাহ , 

জাবীন হামিদ

ডক্টর আকাশের মৃত্যুর পর দেনমোহর এর বিরুদ্ধে অনেকেই কথা বলছেন । বলা হচ্ছে দেনমোহর বেশি থাকায় সে স্ত্রীকে তালাক দিতে পারে নি । আমার জানামতে বিচারকরা কিস্তিতে দেনমোহর পরিশোধের সুযোগ দেন । তাই দেনমোহর এর বিরুদ্ধে কথা না বলে আসুন আমরা বিয়েতে অপচয় এর বিরুদ্ধে কথা বলি । বিয়ে মসজিদে পড়ানো হোক । দেড়শ দুইশ বরযাত্রী বিয়েতে আসে , এটা বন্ধ করা হোক । যৌতুকের টাকা নিয়ে দেনমোহর পরিশোধ করা হয় অনেক বিয়েতে। বাংলাদেশের যে কোন গ্রামে খবর নেন : ছেলেপক্ষ আগে যৌতুকের টাকা নিয়ে সেখান থেকে দেনমোহর কিছুটা পরিশোধ করে, এসব বন্ধ করুন । আল্লাহ ও রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম দেনমোহর এর সর্বোচ্চ সীমা নির্দিষ্ট করে দেননি। তাই দেনমোহর এর বিরুদ্ধে এত কথা বলা কি ঠিক ? হযরত ওমর রাদিয়াল্লাহু আনহু দেনমোহর এর সর্বোচ্চ সীমা নির্ধারণ করতে চেয়েছিলেন কিন্তু একজন মহিলার প্রতিবাদের ফলে তার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নেন। আল্লাহ ভালো জানেন। 

আপনার রেটিং: None

বয়কট ক্লোজ আপ

বিসমিল্লাহ

সংগৃহীত

ক্লোজআপ "কাছে আসার গল্প" এবারের বিজ্ঞাপন দেখেছেন কি? সেখানে দেখনো হয় একটি মেয়েকে(যার মাথায় হিজাব পরানো হয়েছে), আরেকটি খ্রিস্টান ছেলের সাথে প্রেমের(যিনা) সম্পর্ক ছিল, কিন্তু মেয়েটি পরিবারের বিরুদ্ধে যেতে পারবে না বলে ছেলেটির সাথে রিলেশন ব্রেকাপ করে। হঠাৎ একদিন তাদের ট্রেনে দেখা হয়, 

মেয়েটি তখন খ্রিস্টান ছেলেটির দিকে তাকিয়ে থাকে, এর মধ্যে মেয়েটির হাজবেন্ড চলে আসে, তখন মেয়েটি ছেলেটির দিকে আড় চোখে তাকিয়ে থাকে। এই তাকানোর মাধ্যমে কয়েকটি প্রশ্ন তোলা হয়েছেঃ

 ১. পরিবারের দিকে আঙুল তোলা হয়েছে। 

২. ধর্মকে(ইসলামকে) ভিলেন বানানো হয়েছে। যদি ধর্মীয় বাধা না থাকত তবে তারা একসাথে থাকতে পারত। এভাবেই তরুণ প্রজন্মের কাছে ধর্মকে(ইসলামকে) ভিলেন বানানো হচ্ছে। তাদেরকে ব্রেনওয়াশড করা হচ্ছে। 

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (টি রেটিং)

স্বামী সন্তান না থাকা

Collected :

*☀☀☀☀☀☀☀☀☀☀☀আয়েশা রা.-এর কোনও সন্তান ছিল না।

 যতদূর জানি, তিনি সন্তানসম্ভবা হয়েছিলেন, এমন কোনও তথ্যও হাদীসে নেই।

 নবীজির ঘরে খাদীজা রা.-এর ছয়টা সন্তান জন্মগ্রহণ করেছিল। চার কন্যা, দুই* *ছেলে। এটা দেখে আয়েশা রা.-এর মনেও আশা জাগা বিচিত্র কিছু ছিল না, আমারও সন্তান হোক!*

*কিন্তু তিনি সন্তানের জন্যে দু‘আ করেছেন বা নবীজির কাছে দু‘আ চেয়েছেন এমন কোনও নজীর হাদীসে নেই বলেই জানি।

আপনার রেটিং: None

সতীন কাহিনী

সতীন কাহিনী  

- বিদেশী প্রতিবেদন  ও   শখের  ঘটকালীর  অভিজ্ঞতা অবলম্বনে  :  জাবীন হামিদ 

আপনার রেটিং: None

৫ দিন রোজা রাখার তওফিক দিন আল্লাহ্ ।

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

পরপর ৫ দিন রোজা রাখার সুযোগ হাতছাড়া না করি।
কাল বৃহস্পতিবার রোজা রাখা সুন্নাহ । তারপর তিনদিন আইয়ামে বীজের সুন্নাহ রোজা ।
এরপর সোমবারের রোজা ।

৫ দিন রোজা রাখার তওফিক দিন আল্লাহ্ ।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 2 (টি রেটিং)

চাকরী আছে :)

এসএসসির পরই সেনাবাহিনীতে

সম্প্রতি সৈনিক পদে লোক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। আবেদন করা যাবে এসএসসি পাসের পরই। চাকরির পাশাপাশি করা যাবে পড়াশোনাও। আবেদনের শেষ তারিখ ৩০ জুন। বিস্তারিত জানাচ্ছেন সানজিদ সাদ

এসএসসির পরই সেনাবাহিনীতে

সৈনিক পদে সাধারণ, কারিগরি ও চালক ট্রেডে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। এসএসসি পাস হলেই আবেদন করা যাবে। বিজ্ঞপ্তিটি ছাপা হয়েছে ৩১ মের বাংলাদেশ প্রতিদিনে। পাওয়া যাবে www.army.mil.bdwww.joinbangladesharmy.army.mil.bd ওয়েবসাইটে।

আবেদনের যোগ্যতা

সৈনিক পদে সাধারণ ট্রেডে (জিডি) নারী ও পুরুষ উভয় প্রার্থী এবং কারিগরি ট্রেডে শুধু পুরুষ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবে। ২৭ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে বয়স সাধারণ ট্রেডে আবেদনকারীদের ক্ষেত্রে ১৭ থেকে ২০ বছর, কারিগরি ট্রেডে ১৭ থেকে ২১ বছর এবং ড্রাইভার পেশার ক্ষেত্রে আবেদনের বয়সসীমা ১৮ থেকে ২১ বছর। সাধারণ ট্রেডে আবেদনকারীদের কমপক্ষে জিপিএ ৩.০০ পেয়ে এসএসসি বা সমমান (মাদরাসা, কারিগরি, উন্মুক্ত) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। মহিলা সৈনিক পদে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উত্তীর্ণরা অগ্রাধিকার পাবে।

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

রমজান মাসে কোন দোয়া বা আমল আমরা বেশি বেশি করতে পারি?


https://www.youtube.com/watch?v=vDmksmgMFQQ

জেনে নিন কোন দোয়া রমজানে বেশি বেশি পড়বেন

প্রশ্ন : রমজান মাসে কোন দোয়া বা আমল আমরা বেশি বেশি করতে পারি?

উত্তর : রমজান মাস পুরোটাই মূলত রহমত, মাগফিরাত আর নাজাতের জন্য আল্লাহ
রাব্বুল আলামিনের কাছে আল্লাহর বান্দারা দোয়া করবে। কারণ, আল্লাহ
সুবহানাহুতায়ালা রমজান মাসটাকে রহমতের জন্য ভরপুর করে দিয়েছেন।

তাই আমরা
আল্লাহতায়ালার কাছে রহমত চাইতে পারি এবং মাগফিরাতের জন্য দোয়া করতে পারি।
‘আল্লাহুম মাগফিরলি ওয়াতুব আলাইয়া’ ধরনের দোয়া করতে পারেন,যেগুলোতে
আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে মাগফিরাতের জন্য দোয়া করা হয়েছে, অথবা
আসতাগফিরুল্লাহা… ওয়াতুব ইলাইহে, অথবা যেগুলোতে আল্লাহ তায়ালার প্রশংসা
রয়েছে, যেমন— লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু লা শারিকালাহু লাহুল মুলকু
ওয়া লাহুল হামদু ওয়া হুয়া আলা কুল্লি শাইয়িন ক্বাদিরের মতো দোয়া করতে
পারেন।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)
Syndicate content