সত্য বলা, চলা ও প্রচারই হোক বিসর্গের ভাষা...

প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে মুক্ত হল তারই শৈশবের চেনা জায়গা

স্কুলের
জায়গাটি দীর্ঘদিন ধরে খালি পেয়ে সুযোগ বুঝে দখলের পাঁতারায় নামে এক ভূমিদস্যু।
অত্যন্ত দামি এই জমির জাল দলিল তৈরিসহ নানা দপ্তরের কাজ প্রায় গুটিয়ে এনেছিল।
কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সব গুড়ে বালি।স্কুলটি ছিল মূক বধির শিক্ষার্থীদের।
জাতীয় সংসদ ভবনের ঠিক পশ্চিম পাশে স্বাধীনতার বেশ আগে থেকে স্কুলটিতে মূক-বধির
শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা করে আসছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছোটবেলায় বাবা-মায়ের
সঙ্গে স্কুলটি দেখতে যেতেন। নব্বইয়ের দিকে স্কুলটি মতিঝিলে স্থানান্তরিত হলে খালি
পড়ে থাকে জায়গাটি। এই সুযোগে এক
ভূমিদস্যু জাল দলিল করে স্কুলটির জায়গা নিজের নামে রেজিস্ট্রি করে নেয়ার পাঁয়তারা
করে। কিন্তু বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নজরে আসায় আর সফল হতে পারেনি

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

এখনও মমতা ও মানবতাবোধ আছে মানুষের মধ্যে

পথেঘাটে
বিপদগ্রস্ত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে না এসে তাকে সম্পূর্ণরূপে উপেক্ষা করে যাওয়া
অথবা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ছবি বা সেলফি তোলার এক নির্মম রেওয়াজ শুরু হয়েছে আজকাল। এমন
একটি হতাশাজনক বাস্তবতার ভেতরও ব্যতিক্রম কিছু ঘটানা সত্যই বিবেককে নাড়িয়ে দেয়। সঙ্গত
ও স্বাভাবিক এমন কিছু উদাহরণ সৃষ্টি হলে তা সমাজে গভীর প্রভাব রাখতে সক্ষম হয়। সততা
যখন প্রায় নির্বাসনে সে সময় দুয়েকটি সততার দৃষ্টান্ত আমাদের সমাজে কিছুটা হলেও
আলোড়ন তোলে। এসব থেকে মানুষ হয়ত খুব বেশি শিক্ষা নেন না, কিংবা নিজ জীবনে সেটা অনুসরণ করেন না। তবু তার মূল্য অনেক। রেলওয়ে বিভাগের

আপনার রেটিং: None

সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সমুন্নত হোক

 

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

অসাম্প্রদায়িকতা ধর্মহীনতা নয়

আপনার রেটিং: None

বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে জঙ্গিবাদের ঠাই নেই

আপনার রেটিং: None

নৌবাহিনীর শ্রেষ্ঠত্ব দিয়ে শেষ জাতীয় সাঁতার প্রতিযোগিতা

শেষ হয়েছে ২৮তম জাতীয় সাঁতার প্রতিযোগিতা।২৪ স্বর্ণসহ মোট ৫০টি পদক
জিতে র্শীষস্থান অর্জন করেছে নৌবাহিনী দল। ১৪ স্বর্ণসহ ৪৭টি পদক জিতে দ্বিতীয় স্থান
লাভ করেছে সেনাবাহিনী দল। ২ স্বর্ণ, ৫ রৌপ্যসহ ১৭টি পদক নিয়ে তৃতীয় হয়েছে ক্রীড়া শিক্ষা
প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)।দলগত পদকে নৌবাহিনী এগিয়ে গেলেও ব্যক্তিগত পদকপ্রাপ্তিতে পুরুষ
ও মহিলা উভয় বিভাগেই সেরা হয়েছে সেনাবাহিনীর সাঁতারুরা। পুরুষ বিভাগে একটি নতুন জাতীয়
রেকর্ডসহ ৪টি স্বর্ণ ও একটি ব্রোঞ্জপদক পেয়ে ব্যক্তিগত চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন সেনাবাহিনীর
সাঁতারু জুয়েল আহমেদ। মহিলা বিভাগে ৫টি নতুন জাতীয় রেকর্ডসহ ৫টি স্বর্ণ ও একটি রৌপ্যপদক
নিয়ে সেরা হয়েছেন সেনাবাহিনীর রোমানা আক্তার। সৈয়দ নজরুল ইসলাম

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

পাহাড়ী জনগোষ্ঠীর নব উদ্দীপনা

প্রকৃতিগতভাবে পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ী
এলাকাগুলো উর্বর ও অনেক প্রকার ফসল উৎপাদনের উপযোগী। একটা সময় ছিল পাহাড়ে জুম চাষ
ছাড়া অন্য কোন আবাদ হতো না। পাহাড়ীরাও তাদের এই ঐতিহ্যবাহী ফসল উৎপাদনের প্রক্রিয়া
থেকে আধুনিক চাষাবাদের প্রতি মনোযোগীও ছিল না। তবে জুম চাষ সম্পূর্ণ প্রকৃতিনির্ভর
হওয়ায় অধিক খরা বা বৃষ্টিতে উৎপাদন ব্যাহত হতো। এতে খাদ্যাভাবও দেখা দিত। এখন
বিকল্প ফলন হিসাবে ফলের চাষ পাল্টে দিয়েছে পাহাড়ের অর্থনীতির চিত্র। পার্বত্য

আপনার রেটিং: None

অ্যাপ হয়েছে মাছচাষিদের জন্য

আমরা মাছে ভাতে বাংঙ্গালী।

আপনার রেটিং: None

জঙ্গীবাদ মোকাবেলায় ডিজিটাল তালিকা হচ্ছে

জঙ্গীবাদের মতো বৈশ্বিক সমস্যা
মোকাবেলায়  তৎপর রয়েছে আমাদের আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এই লক্ষ্যে জঙ্গীদের ডাটাবেজ তৈরি
করা হয়েছে। তাতে স্থান
পেয়েছে প্রায় দুই হাজার জঙ্গীর নাম। কয়েক দফায় যাচাই বাছাই শেষে ডাটাবেজটি তৈরি
করা হয়েছে। তবে ডাটাবেজে নতুন নতুন জঙ্গীর নাম ও জঙ্গীবাদ সম্পর্কিত তথ্য যুক্ত
হওয়া অব্যাহত আছে। ডাটাবেজে থাকা জঙ্গীদের মধ্যে পাঁচ শতাধিক জঙ্গীকে অধিক

আপনার রেটিং: None

হতে হবে সোচ্চার করতে হবে প্রতিরোধ

বাংলাদেশে মেয়েদের বাল্যবিবাহের
হার এখনো আশঙ্কাজনকভাবে বেশি—যার ভয়াবহতার শিকার শুধু মেয়েশিশুরাই না; বরং সমগ্র অর্থনীতি
ও স্বাস্থ্যক্ষেত্রেও এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে।সহজভাবে বলতে গেলে বাল্যবিবাহ একটি মানবাধিকার
পরিপন্থী কাজ, সহিংসতা যার অনুষঙ্গ—যা হতে পারে শারীরিক, মানসিক, যৌন, আবেগজনিত বা
অর্থনৈতিক। মেয়েশিশুরাই প্রধানত এর শিকার। যদিও কখনো কখনো ছেলেশিশুদের ওপরও বাল্যবিবাহ
চাপিয়ে দেওয়া হয়। সমস্যাটি বৈশ্বিক, কিন্তু বাংলাদেশে এর প্রাদুর্ভাব খুব বেশি। যেখানে
অর্ধেকের বেশি মেয়েশিশুর ১৮ বছরে বিয়ে হয়ে যায় আর প্রতি পাঁচজনে একজন মেয়েশিশুর বিয়ে
হয় ১৫ বছরের আগেই। এমনকি ৯ থেকে ১২ বছর বয়সী মেয়েশিশুর বিয়ের ঘটনা এ দেশে এখনো ঘটে। বাংলাদেশে বাল্যবিবাহ ব্যাপকভাবে গৃহীতই শুধু নয়, বরং দরিদ্র পরিবারগুলো—যারা
তাদের সন্তানদের পর্যাপ্ত খেতে-পরতে দিতে পারেন না বা বেশি বয়সী মেয়ের বিয়েতে অধিক

ছবি: 
আপনার রেটিং: None
Syndicate content